• সোমবার, ১৮ জানুয়ারী ২০২১

এ বছর বাজারে আসা ৮ ফ্ল্যাগশিপ ফোন

প্রিয় প্রতিবেদন: প্রকাশ ২৮ নভেম্বর ২০২০ 
মহামারি করোনাভাইরাসের প্রভাবে প্রায় সব প্রতিষ্ঠানের জন্যই চলতি বছরটি ছিল বেশ চ্যালেঞ্জের। বিশেষ করে স্মার্টফোনের মতো তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক প্রতিষ্ঠানগুলোকে হতে হয়েছে বেশ কৌশলি। কেননা, এ বছর স্মার্টফোনের চাহিদা বাড়লেও কমেছে মানুষের আর্থ-সামাজিক জীবনব্যবস্থার মান। তাই একদিকে গ্রাহকের চাহিদা পূরণ ও ব্র্যান্ডের মান বজায় রাখার পাশাপাশি, গ্রাহকের ক্রয়ক্ষমতাও মাথায় রাখতে হয়েছে কোম্পানিগুলোকে। 
এমন প্রেক্ষাপটে এ বছর দেশের বাজারে ফ্ল্যাগশিপ ফোনও এসেছে হাতে গোনা মাত্র কয়েকটি। সাধারণত, ফ্ল্যাগশিপ ফোনগুলো হয় যেকোনো প্রতিষ্ঠানের ওই নির্দিষ্ট সিরিজের সেরা স্পেসিফিকেশনের ফোন। এসব ফোনের দামও হয় ফ্ল্যাগশিপ রেঞ্জের।
এ বছর দেশের বাজারে আসা আট ফ্ল্যাগশিপ ফোনের বৈশিষ্ট্য তুলে ধরা হলো। 
স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ আল্ট্রা: ১২ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি রমের স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ আলট্রা দেশের বাজারে এসেছে চলতি বছরের জুলাই মাসে। স্মার্টফোনটিতে ১০৮ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা যুক্ত করেছে স্যামসাং। এছাড়া রয়েছে ৫০০০ এমএএইচ ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারি। দেশের বাজারে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ আল্ট্রা এর দাম ১ লাখ ২৯ হাজার ৯৯৯ টাকা। 
অ্যাপল আইফোন১১ প্রো ম্যাক্স: ৪ জিবি র‌্যাম ও ৬৪ জিবি রমের অ্যাপল আইফোন১১ প্রো ম্যাক্স এর মূল্য ১ লাখ ৩৯ হাজার ৯৯৯ টাকা। স্মার্টফোনটিতে ১২ মেগাপিক্সেল করে তিনটি ক্যামেরা যুক্ত করা হয়েছে। পানি বা ধুলোতে এই ফোনের কোনো ক্ষতি হবে না বলে জানিয়েছে প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানটি। 
ভিভো ভি২০: সাশ্রয়ী মূল্যের ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোন ভিভো ভি২০। ফোনটির মূল্য ৩২ হাজার ৯৯০ টাকা। ফোনটিতে ৪৪ মেগাপিক্সেলের আই অটোফোকাস সেলফি ক্যামেরা যুক্ত করা হয়েছে। এছাড়াও স্মার্টফোনটির ডুয়াল ভিডিও ক্যামেরা সকলের নজর কেড়েছে। ভিভো ভি২০তে রয়েছে ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবির রম।
হুয়াওয়ে পি৪০ প্রো: ৮ জিবি র‌্যাম এবং ২৫৬ জিবি রমের হুয়াওয়ে পি৪০ প্রো দেশের বাজারে এসেছে চলতি বছরের সেপ্টেম্বর মাসে। ফ্ল্যাগশিপ ফোনটির সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিক হলো এর ক্যামেরা ও ফটোগ্রাফি কোয়ালিটি। ক্যামেরা সেট-আপে থাকছে ৫০ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা ভিশন ক্যামেরা, ৪০ মেগাপিক্সেলের সিনে ক্যামেরা, ৩২ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা, ১২ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো ক্যামেরা ও থ্রিডি ডেপথ সেন্সর। এটিই বাংলাদেশে হুয়াওয়ের প্রথম ৫জি ফোন। পি৪০ প্রো এর দাম ১ লাখ ৯৯৯৯ টাকা।
শাওমি মি ১০প্রো: ৯৪ হাজার ৫০০ টাকা মূল্যের শাওমি মি ১০প্রোতে রয়েছে ৮ জিবি রম ও ২৫৬ জিবি রম। স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২০ আলট্রা এর মতো শাওমি মি ১০প্রে তেও যুক্ত করা হয়েছে ১০৮ মেগাপিক্সেলের প্রাইমারি ক্যামেরা। রয়েছে ৪৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি। 
ওয়ানপ্লাস ৮ প্রো: এই ফোনের পেছনে চারটি ক্যামেরা যুক্ত করা হয়েছে। সেলফি ক্যামেরাটি ১৬ মেগাপিক্সেলের। ওয়ানপ্লাস ৮ প্রো ২৩ মিনিটে ৫০ শতাংশ চার্জ হবে। এছাড়াও স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ৮ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি রম। ৪৩০০ এমএএইচ ব্যাটারির স্মার্টফোনটির মূল্য ৯৪ হাজার ৯৯০ টাকা। 
অপো রেনো থ্রি প্রো: অপো রেনো থ্রি প্রো দেশের বাজারে এসেছে চলতি বছরের জুন মাসে। এই স্মার্টফোনে রয়েছে ৮ জিবি র‌্যাম ও ২৫৬ জিবি রম। ৬৪ মেগাপিক্সেলের মূল ক্যামেরাসহ ফোনটিতে আছে কোয়াড রিয়ার ক্যামেরা। ৪০২৫ এমএএইচ ব্যাটারি এই ফোনে ভোক ফ্ল্যাশ চার্জ ৪.০ প্রযুক্তি থাকায় ৫৬ মিনিটেই ফুল চার্জ দেওয়া সম্ভব হবে। অপো রেনো থ্রি প্রো এর মূল্য ৩৯ হাজার ৯৯০ টাকা।
ওয়ালটন প্রিমো এসসেভেন প্রো: চলতি বছরের জুলাই মাসে ৪৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সুবিধার ফ্ল্যাগশিপ ফোন নিয়ে আসে দেশীয় ব্র্যান্ড ওয়ালটন। প্রিমো এসসেভেন প্রো তে রয়েছে ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি রম। সাশ্রয়ী মূল্যের ফ্ল্যাগশিপ ফোনটিতে প্রয়োজনীয় পাওয়ার ব্যাকআপ দিতে ৩৯৫০ এমএএইচ ব্যাটারি এবং ১০ ওয়াট ওয়্যারলেস চার্জিংসহ ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা রয়েছে। ওয়ালটন প্রিমো এসসেভেন প্রো’র দাম ১৯ হাজার ৯৯৯ টাকা।

Share :