• বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১

দেশের প্রথম ডাটা রিকভারি ডিজাস্টার ডাটা সেন্টার তৈরি

প্রিয় প্রতিবেদন: প্রকাশ: ১৪ নভেম্বর ২০২০ 
দেশের প্রথম ডাটা রিকভারি সেন্টারটি দেশি তথ্য ও প্রযুক্তি প্রকৌশলীদের তৈরি। বিদেশি সহায়তা ছাড়াই আন্তর্জাতিক মানের এই ডিজাস্টার ডাটা রিকোভারী সেন্টারটি তৈরি করেছেন তারা। প্রকল্প পরিচালক মেজর ওবায়দুর রেজা বলেন, বিদেশে প্রশিক্ষণ নিয়ে বড় বড় ডাটা সেন্টার তৈরি করলেও ডিজাস্টার ডাটা সেন্টারটি ভিন্নধর্মী একটি কাজ।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরেই ডিজিটাল বাংলাদেশের যাত্রা। ধীরে ধীরে বাংলাদেশ তথ্য প্রযুক্তি খাতে এগিয়ে চলা। তারই ফসল এই ডিজাস্টার ডাটা রিকভারি সেন্টার।
তবে এই তথ্য সংরক্ষণ কেন্দ্রটি যশোরে কেন স্থাপন করা হলো? সিলেট থেকে চিটাগাং অঞ্চল ভূমিকম্পের জন্য বেশি ঝঁকিপূর্ণ। এরপরেই আছে ঢাকা। তাই কম ঝঁকিপূর্ণ হওয়ায় এটি যশোরে স্থাপন করা হয়েছে।
বাংলাদেশের তথ্য প্রযুক্তিবিদ মেজর ওবায়দুর রেজার তত্ত্বাবধানে কাজটি সম্পন্ন হয়েছে। প্রথম বাংলাদেশী হিসাবে ওয়ার্ল্ড ডাটা সেন্টারের প্রশিক্ষণের অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়েছেন তিনি।
মেজর ওবায়দুর রেজা বলেন, অপারেশনাল সাসটেনাবলের দিক থেকে যদি চিন্তা করা হয় এই ডিজাস্টার  রিকোভারী সাইটটির ক্যাপাসিটি বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত দক্ষতার সাথে এটা পরিপূর্ণ করতে পারবে। তা বিজিবি’র নিজস্ব চাহিদাগুলো মিটানোর পরে বাড়তি চাহিদা সম্পন্ন করতে পারবে।
আপটাইম ইন্সটিটিউট ডাটা সেন্টারে স্ট্যান্ডার্ড অনুযায়ী পরিকল্পনাটি করা হয়েছে বলে জানান তিনি।
ওবায়দুর রেজা আরও বলেন, বিদেশি কোন প্রকৌশলী এটার সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিল না। তবে আমরা ইক্যুইপমেন্ট প্রকিউরমেন্টের ক্ষেত্রে লোকাল ভেন্টারের সাপোর্ট নিয়েছি। ইন্সটিটিউশনের একজন প্রফেশনাল হিসেবে আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি এখানে একটি আন্তর্জাতিক মানের ডিআরএস নির্মাণ করা হয়েছে। দেশের কল্যাণে এই ডিজাস্টার ডাটা রিকভারী সেন্টার ভূমিকা রাখবে বলে জানান প্রকল্প পরিচালক।

Share :